দোহারে সেনাবাহিনীর ত্রাণ বিরতণ”

দোহারে সেনাবাহিনীর ত্রাণ বিরতণ”

ডেস্ক সংবাদ: বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৯ পদাতিক ডিভিশনের ব্যবস্থাপনায় উপজেলার মুকসুদপুর ইউনিয়নে বন্যা কবলিত প্রায় ৫০টি পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী সহায়তা হিসাবে প্রদান করা হয়।

বুধবার সকালে উপজেলার মুকসুদপুর ইউনিয়ন পরিষদে দোহার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ এফ এম ফিরোজ মাহমুদের সভাপতিত্বে সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা মেজর রাশাদ বিন কালাম এই ত্রান সামগ্রী বিতরন করেন।ত্রান সামগ্রী বিতরনকালে মেজর রাশাদ বিন কালাম বলেন, বন্যার কারনে যেসব পরিবার অসহায় হয়ে পড়েছে তাদেরকে সহায়তা করার জন্য সারাদেশের ন্যয় দোহারের ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। আমরা ধারাবাহিক ভাবে ধাপে ধাপে সবগুলো ইউনিয়নে সহায়তা প্রদান করার চেষ্টা করব।

জানা যায়, প্রায় ১৫দিনের অধিক সময় কাল যাবৎ পদ্মা নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় দোহার উপজেলার আটটি ইউনিয়নের বাসিন্দারা পানিবন্দি হয়ে চরম ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। এরমধ্যে অন্যতম ঝুঁকিপূর্ণ ইউনিয়ন মুকসুদপুর, যার অসংখ্য পরিবার পানিবন্দি অবস্থায় অসহায় জীবন যাপন করছে। এহেন পরিস্থিতিতে এই অসহায় মানুষগুলোকে বাঁচিয়ে রাখার তাগিদে সহায়তা প্রদানে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কাজ করে চলেছে। এর অংশ হিসেবে আজকে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে মুকসুদপুর ইউনিয়নের ৫০ টি পরিবারের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। এ সময় সেনাবাহিনীর সদস্যদের পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন অত্র ইউনিউনের চেয়ারম্যান জনাব এম এ হান্নান খান ও ইউনিয়নের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ।

দোহার,ঢাকা।

জাতীয়